Facebook funny Comment Bangla

ফেইসবুকের সবচেয়ে জনপ্রিয়/ফানি/মজাদার কমেন্টস্‌ কালেকশন 

CLICK HERE TO GO TO PART 2 of Facebook Funny Comment Bangla 


#১
অসম্ভব ভাল ছবি। এক কথায় অনবদ্য। বহুদিন পরে একটা ভাল ছবি দেখলাম। একবিংশ শতাব্দীতে এধরনের ছবি আর আগে আসে নি। অনবদ্য এবং অসাধারণ। শুধু যে প্রাসঙ্গিক ও সময় উপযোগী ছবি তাই নয়, একেবারে অপরূপ সৌন্দর্যের মূলে কুঠারাঘাত করেছেন। তৃতীয় বিশ্বের একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে আমরা যখন সম্রাজ্যবাদীদের চোখ রাঙ্গানো আর আমলাতান্ত্রীক জটিলতার শিকার হয়ে ক্রমশ এগিয়ে যাচ্ছি একটি অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে; ঠিক তখনি, ঠিক সেই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে আপনার এই ছবির মাঝে আমি খুঁজে পাচ্ছি অন্ধকার ঠেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার একটি সম্ভাবনা । আর বিদেশী বেনিয়াদের কাছে বুদ্ধিবৃত্তিক দাসত্ব গ্রহন করার বিপক্ষে একটি সূক্ষ্ম বার্তা। আপনার এই ছবি হতে পারে আই এস এর বিরুদ্ধে আমাদের রুখে দাড়ানোর অনুপ্রেরণা। হতে পারে ২০১৯ বিশ্বকাপ জেতার অনুপ্রেরণা। এই ছবি হতে পারে ২০৫০ সালের নতুন লায়লা মজনুর প্রেমের কারণ । আপনার এই ছবি হতে পারে বাংলাদেশের প্রথম অস্কার বিজয়ী ছবির অনুপ্রেরণা,, আপনার এই ছবি সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক সাংস্কৃতিক যেকোনো প্রক্ষাপট নিমিষে পাল্টে দিতে পারে,,,, এই ছবি দেখে একজন ক্ষুদার্থ ব্যক্তি সারাদিন না খেয়ে থাকার যন্ত্রণা নিমিষে ভূলে যেতে পারে, সৌন্দর্য দেখার জন্য খুব বেশি দূরে যাওয়ার যে প্রয়োজন নেই তা আপনার ছবি দেখে আমি অনুধাবন করলাম, আমার ধারনা বিশ্বের বিখ্যাত সব সমালোচকদের এক সাথে করলেও এই ছবির কোন ভূল ধরতে পারবে না,,,, আপনাকে একটা কথা বলব ভবিষ্যতে এত সুন্দর ছবি দিয়েন না,, কারন সৌন্দর্যেরও কিছু লিমিট থাকা দরকার,,,, খুব বেশি কিছু বলবনা কারন আবেগে চোখে পানি চলে আসছে,,,,, পরে আবার টিস্যু পেপার লাগবে..


#২
ইহা আসলেই একটি দূর্দান্ত ছবি। অসাধারন মুখ ভঙ্গি ছবিটিকে আকর্ষনীয় করে তুলেছে। এমন পোজ জাতি আগে দেখে নাই। ছবিটির অসাধারন ব্যাকগ্রাউন্ড আমার মনকে ছুয়ে গেছে।ছবিটি ক্যামেরার অসাধারন ব্যবহার হয়েছে।সঠিক ভাবে ফোকাস এবং ফ্রেমিং করা হয়েছে।এই অসাধারণ ছবিটি যে তুলেছে তাকেও ধন্যবাদ জানাই।আর এই ছবির এডিট ছবির মাহাত্ব্য আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। অসাধারণ এডিট! নামীদামি ফোটগ্রাফারের অনুপ্রানীত করবে এই সকল ছবি।মডেল হিংসার কারণ হবে এই ছবি। অসাধারণ মডেল,ফোটগ্রাফার ,লোকেশন এবং এডিটের মিলবন্ধনের কারণেই আমি এত সুন্দর ছবি দেখতে পাচ্ছি।ফেসবুকবাসী এমন ছবি আরো দেখতে চায়। রিয়েলদের এমন অসাধারন ছবি জাতি বারবার দেখতে চায়। সবশেষে কিছু আবেগিত সত্য কথা বলতে চাই।এত সুন্দর একটা ছবির পোস্টে কমেন্ট করতে পেরে আমি আজ আনন্দে ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। প্রথমেই বলে নিতে চাই, পোস্টে কমেন্ট করাটা খুব সহজ কাজ ছিল না। আমার চারপাশের প্রত্যেকটা মানুষ মাথার ঘাম পায়ে ফেলে আমায় সাহায্য করেছেন এ পোস্টে কমেন্ট করতে। এজন্য আমি সবার আগে ধন্যবাদ দিতে চাই স্যার মার্ক জাকারবার্গকে। উনি না থাকলে আমি আজ এ পোস্টে কমেন্ট করতে পারতাম না। এরপর আমি ধন্যবাদ দেব আমার দাদাকে। যার জন্ম না হলে আমার বাবার জন্ম হতনা। আর আমার বাবার জন্ম না হলে আমারও জন্ম হতনা। আর আমার জন্ম না হলে এ পোস্টে আমি কমেন্ট করতে পারতাম না। এরপর আমি ধন্যবাদ দিতে চাই আমি আমার জুতার ফিতাকে। একদিন জুতায় ফিতা বাঁধতে গিয়ে আমি একটা বড় দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে যাই। সেই দিন মারা গেলে আজ আমি পোস্টে কমেন্ট করতে পারতাম না। আমি আর কিছু লিখতে পারছি না। আপনার পোস্টে কমেন্ট করতে পেরে আমার উত্তেজনায় হাত কাঁপছে, আনন্দে আমার চোখ বেয়ে পানি গড়িয়ে পড়ছে।

#৩
অসম্ভব ভালো লিখেছেন। এক কথায় অনবদ্য।
বহুদিন পরে একটা ভালো লেখা পড়লাম। রবীন্দ্র পরবর্তী যুগে এধরনের লেখা আর আগে আসে নি। অনবদ্য...অসাধারণ... শুধু যে প্রাসঙ্গিক ও সময়উপযোগী লেখা তাই নয় একেবারে সমস্যার মূলে কুঠারাঘাত করেছেন। লেখকের বক্তবের সাথে পুরোপুরি একমত। 

#৪
সমকালীন বঙ্গীয় সাহিত্যাকাশের উদীয়মান নক্ষত্রসম লেখকের এই প্রতিবেদন খানা সাহিত্য পিয়াসীদের মনে নিগূড় যে বেদনার সৃষ্টি করিয়াছে তাহা কেবলমাত্র নব্য একবিংশীয় ধারার তত্ত্বীয় দর্শনের সহিতে প্রাচীন চন্ডী মঙ্গলীয় রোমান্টিসজমের সামঞ্জস্যপূর্ণতার ব্যাখ্যাই নয়, বর্তমান পেটি বুর্জোয়াদের জলশুন্য অন্ন ভক্ষণের তীব্র ক্ষুধাও প্রকাশ করিয়াছে...

#৫
এক গ্রামে দুই ভাই থাকত। একবার তাদের মাঝে খুব বড়সড় ঝগড়া হল। বড় ভাই রাগ করে জাপান চলে গেলো। ছোট ভাই চলে গেলো সুদান। সেখানে গিয়ে বিয়ে করলো। একটা ছেলে হলো। তারপর সে ছোট ভাই আবার দেশে ফিরে এলো। সবাই তাকে সুদানী ডাকা শুরু করলো। তাই তার ছেলের নাম হলো সুদানীর পোয়া। সেই সুদানীর পোয়া আর কেউ নয় এই পোস্টদাতা। 

#৬
এই সাংবাদিক এর ছোট্ট বাড়া 
জিবনেও হয়না খাড়া 
একটু দিলে নাড়া, 
শুরু হয় পানি পড়া 💦
তবুও রিপন ছন্দে সেরা 😂

অল্প বয়সে পাকলে বাল 
দুঃখ থাকে চিরকাল  
বেলি ফুলের গন্ধে  
সাংবাদিককে
চু*** দিলাম ছন্দে 😐

বাগানে পাওয়া যায় ফুল " দোকানে পাওয়া যায় কেচি" সেই কেচি দিয়ে কাটবো আমি এই সাংবাদিকের বিচি✂️ আম খাইলাম, জাম খাইলাম আরও খাইলাম লিচি🍓 যাদুঘরে যেন যত্ন করে রাখা হয় এই সাংবাদিক এর বিচি👉🏼🥚🥚

#৭
লজিকালি ব্যাপারটা এমন না।
 ব্যাপারটা যেমন ব্যাপারটা তেমন।যদি বলি বুঝবেন না না বললেও বুঝবেন না। তাই বলছিনা, বলার ইচ্ছা ছিল বাট বললে বুঝবেন কেম্নে না বললেও ত বুঝবেন না তাই বলছি ব্যাপারটা এমন না।বুঝবেন কিন্তু বুঝবেন না, এভাবে বুঝালেও বুঝবেন না।তাই যেভাবেই বুঝাই না কেন মূল কথা হল আপ্নি বুঝবেন না। তাই আর বুঝাইলাম না...!

#৮
একটি ঘোষণা, কমেন্ট এ তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে কেউ বানান ভুল করবেন না। কমেন্ট পড়তে কষ্ট হয়। ধন্যবাদ।

#৯
সেন্টিখোররা পেইজে লাইক দিবেন।একজন দেয় নাই। সে এখন গুলিস্তানে তেইল্লাচোরা মারার ওষুধ বিক্রি করে এই কথা বইলা বইলা: 
" জায়গায় খায় জায়গায় মরে। সোজা হইয়া খায় চিৎ হইয়া মরে। তেইল্লার ঘরের তেইল্লা, বাসা বাড়ি নষ্ট, দাদি চাচির মনে কষ্ট  "

#১০
ইঁদুর মারেন, তেলাপোকা মারেন, ছার পোকা মারেন
জাদুর মলম ম্যাজিক মলম।
দাগ দিলেই মরে ঘষা দিলেই মরে।
চোরার ঘরের চোরা, তেইলা চোরা,
জায়গায় খায়,জায়গায় ব্রেক।
কাইত হইয়া খায় চিত হইয়া মরে,লাফাইয়া খায় দাপাইয়া মরে।
ময়নার মার ঘুম নাই, চখিনার মার খাতা নাই।
ইঁদুর চিকার মারামারি নষ্ট করে বাসা বাড়ি,
ঔষুধ লাগান তারাতারি।
ধরা পরলে জামিন নাই, ইঁদুর তোর রক্ষা নাই।
একদাম ২০টাকা ২০টাকা২০টাকা

#১১
এত শখ করে একটা উপহার কিনলাম, লেখাটি পড়তে পড়তে, কখন যে রেখে, চলে এলাম ;
ভাই মন খারাপ করবেন না!
আরেকদিন দেব ; আজকে চলি কেমন....

#১২
এতো সুন্দর ও মধুর মতো একটা 
নিউজ করার জন্য সাংবাদিকের
বিচির মধ্যে টুকা মারা হক..😌

#১৩
কিছু কিছু ভিডিও দেখলে ইচ্ছে করে নিজের বিচিতে নিজেই টোকা দিয়ে চমকে উঠি। 😑😑😑

#১৪
অনেকদিন যাবৎ শীতের সোদনে বিচিগুলা ভিত্তরে হান্দাই গেসিলো

ভিডিওটা দেখে আবার বিচিগুলা গর্তের ভেতর থেকে বের হয়ে গেসে😉😉

ধন্যবাদ মাননীয় পোস্টদাতা 

#১৫ 
প্রচণ্ড মাথা ব্যথা করছিলো 😞
কোনো ওষুধেই কাজ হচ্ছিলোনা,,🤒
অতঃপর আমি এই পোষ্ট টা দেখলাম
এখন সাথে মাথা আছে কিনা সেটাই বুঝতে পারছি না 🤬
Again আমি fb তে বমি react এর অভাব বোধ করছি 🤢🤢🤢


#১৬ 
বইন রুচি না থাকলে রুচির সিরাপ খা। নাহলে রুচির চানাচুর খা। তা নাহলে একটু বিষ খা, তাও বইন একটু রুচি ঠিক কর। 🥴🐸

#১৭ 
ব্রাউজিং করতে করতে হিরু আলমের গান টা সামনে আসাতে
শুনে ফেলছি,,😂😂😂😂
গায়ের সবকটি পশম দাঁড়িয়ে গেলো,
রাতে জর ও আসতে পারে, 
কোমায় ও চলে যেতে পারি 
সবাই দোয়া করবেন 
গুড নাইট গায়েছ।


#১৮
ভাই ছবিতে এইডা কেডা 😲

এটা ভিনজগতের কোনো অদ্ভুত প্রাণী😇😇😇

#১৯ 
প্রথমে ভুলে স্যাড রিয়্যাক্ট পড়ে গেছিলো, পরে হা হা রিয়্যাক্ট দিতে গিয়ে দেখি এমবি শেষ, মাথা পুরাই নষ্ট........ যে করেই হোক পোষ্টে হা হা দিতেই হবে।
ফ্লেক্সিলোড এর দোকানে গিয়ে দেখি দোকান বন্ধ, শেষমেষ দোকানের সার্টার ভেঙ্গে রিচার্জ করে পোষ্টে হা হা দিলাম।
ততক্ষনে পুলিশ বিষয়টা জেনে গেছে.......এখন দোকানের খুটির সাথে বাধা আছি, বেদম পিটানি খাচ্ছি..........তারপরও মনের মধ্যে শান্তি শান্তি লাগতাছে, পোষ্টে আমি হা হা দিতে পেরেছি।

#২০
এসব পোস্ট দেওয়ার জন্য তোর এক বিচি উত্তর দিকে আর এক বিচি দক্ষিন দিকে রাইখা মাঝখানে সাবমেরিন ব্লাস্ট করামু। এর পর বুঝবি চোদন কাহাকে বলে।

#২১
কর্তার ইচ্ছায় কর্তির অনিচ্ছায়
হস্তের উপরে হস্ত রাখিয়া
জোর করিয়া বস্ত্র খুলিয়া
একটি নির্দিষ্ট বিন্দু কে
কেন্দ্র করিয়া
একটি দন্ড দ্বারা
সমান তালে ঘর্ষণের ফলে
যে বর্ষন হয়ে নিগৃত সৃষ্ট বস্তুটি আর কেও নয় আজকের এই সাংবাদিক🙂

#২২
চীনের একজন বিখ্যাত দার্শনিক বলেছিলেন "অং চুং চা চাং চুং ফা" 
অর্থাৎ-যে বাল তুমি ছিড়তে পারবেনা সেই বাল তুমি টানতে যেও না..!!

#২৩
~ কিছু সাংবাদিক এর news দেখলে
- গালি আমাকে জিজ্ঞেস করে May I Come In Sir

#২৪
বাহ! অসাধারণ পোষ্ট , আপনার জন্য থাকছে কেয়া কসমেটিকের সৌজন্যে একটি মহা মূল্যবান ইয়াবা মেশিন, পরিবেশ বান্ধব গাঞ্জার গাছ, আপনাকে জামালপুরের ডিসি, ফেনীর সিরাজউদ্দৌলা, ওসি মোয়াজ্জেম, বরগুনার মিন্নি, টেন্ডার কিং জি কে শামীম, ক্যাসিনো খালেদ ও সম্রাট, এমপি শামসুল, সানাই মাহবুব,রানু মন্ডল, নারী ব্যাবসায়ী পাপীয়া, ডা: সাবরিনা, সেফুদার এর পক্ষ থেকে, আন্তরিক
অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা সহ স্বাগতম।

#২৫
গোবর একটা অদ্ভুত জিনিস!!
ভেজা থাকলে মাছের খাবার
শুকনো করলে জ্বালানি
গুঁড়া করলে জৈব সার
প্ল্যান্টে গেলে বায়োগ্যাস
ভারতে গেলে প্রসাদ
আর মাথায় গেলে হয় সাংবাদিক

#২৬
আপনার এই পোস্ট দেখে আমার পাশের বাসার পিছনের বাড়ির সামনের মাঠের ডানদিকের রাস্তার প্রথম বাসার ভাবীর বোনের শ্বশুরবাড়ির এক আত্মীয়ের একটা মুরগি ৩ টি ডিম একসাথে উপহার দিয়েছে। তাই তারা সকলেই আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ।

#২৭
ইলেক্ট্রনিক খুটির সাথে হেলান দিয়ে নিউজফিড পড়ছিলাম ।
হঠাৎ এই পোষ্ট টি দেখে হাসতে হাসতে মাটিতে গড়াগড়ি করছিলাম
আশেপাশের মানুষ ভাবলো আমি কারেন্ট শক খাইছি
তাই এখন সবাই লাঠিপেটা করছে
ও মা ! ও বাবা ! ও আল্লাহ ! বাচাও! 

#২৮
একদিন নদীতে সানিলিওন আর
মিয়া খলিফা গোসল করতে নেমেছে,,
,
,
,
,
,
,
,
,
,
,
,
,এইতো আপনার মনোযোগ দৃষ্টি আর্কশন
করতে পেরেছি
'হ্যা ভাই হ্যা' ৩০০টাকার এনার্জি লাইট এখন মাত্র ১০০ টাকা!
সাথে পাচ্ছেন ৬ মাসের গ্যারান্টি
শুধু মাত্র কোম্পানি প্রচারের জন্য!।

#২৯
কমেন্টে কিছু লিখলে যাতে ফ্রেন্ডলিস্টের অন্য কেউ সেটা দেখতে না পায়,
সেটার একটা অপশন ফেসবুক কর্তৃপক্ষের রাখা উচিত।
মান-সম্মানের ভয়ে মনের কথাগুলো বলতে পারিনা। বাল!

#৩০
প্রিয় সাংবাদিক ভাই-
★কাজ না থাকলে বাল ছিড়েন তাতে নিজের আগাছা পরিস্কার হবে।।
★নিউজ না পেলে গাঞ্জা গাছ লাগান, বৃক্ষরোপনের সাথে পিনিকও হবে।।
★কিছু করার না থাকলে পু *কির ভিতর আঙ্গুল দিয়া বসে থাকেন,তাতে বাথরুম ক্লিয়ার হবে।।
★একদম কোন কিছু করার মত না পেলে পাবলিক বাসে ফেরি করে কনডম বিক্রি করুন,তাতে দেশে আপনার মত ফাউলমার্কা সাংবাদিকের জম্মরোধ হবে!!


Tags: facebook funny comments, facebook funny comments bangla, facebook funny comments bengali, facebook funny comments pictures bangla, facebook funny comment photo bangla, facebook funny comment bangla, fb funny comments, funny fb comment, funny facebook comments bangla, bangla funny facebook comment, bangla funny fb comment, funny facebook comments to post, funny facebook comments to post tagalog, ফেসবুক ফানি ফটো কমেন্ট, funny facebook comment for friend, অসাধারণ কমেন্ট, সাংবাদিক কমেন্ট

10 Comments

  1. এই ধরনের ছবি দেখলে শরীর ও মন চাঙ্গা হয়। ����
    শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।
    বেশি বেশি ঘুম হয়����
    বেশি বেশি বাঁচতে ইচ্ছে হয়। ��
    করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার সাহস পাই।
    তাই এই ধরনের ছবি গুলো বেশি বেশি পোষ্ট করার জন্য অনুরোধ রইল।

    ReplyDelete
  2. ৮ বছর যাবৎ আমি ফেসবুক ব্যবহার করি, কিন্তু এত অসাধারণ ছবি কখনোই দেখিনি। কবে শেষ কেঁদেছি মনে পড়ে না। কিন্তু সত্যি আজ এই ছবিটা দেখে কান্না আটকে রাখতে পারলাম না। মনকাড়া আর চমৎকার চুল এবং ফিনিশিং এর মাধুর্যের সাথে নিখুঁত পিক্সেলের দারুণ সাম্য এই ছবিটিকে প্রাণ দিয়েছে,আবার মায়াভরা চাহনি দিয়েছে এক আবেগঘন সৌন্দর্যের ইংঙ্গিত। এই ছবিটি যদি না থাকত তবে রবীন্দ্রনাথ আর নজরুল সাহিত্য রচনা করতে পারতেন না,মাইকেল মধুসূদন দত্ত বুঝতে পারতেন না তার ভুল।এই ছবি একাত্তরে মুক্তিযোদ্ধাদেরদিয়েছে দেশকে স্বাধীন করার প্রেরণা, যুগিয়েছে উদ্যম। আগের দিনের আলেকজান্ডার দি গ্রেটের কথা মনে আছে?উনার যুদ্ধ জয়ের রহস্য ও কিন্তু এই ছবিটিই। রহস্যজনক হলেও সত্য, মোনালিসার ছবিতে মোনালিসাকেও ঠিক এভাবেই হাসতে দেখা যায়। টাইটানিকের কথা মনে আছে? টাইটানিকের সাথেও এই ছবির এক বিরাট সংযোগ রয়েছে। যে এই ছবির তোলেছে এবং কাজ করেছে সত্যিই, স্যালুট আপনাকে, এবং প্রশংসানীয়!!!। যাই হোক লিখতে গেলে পাতা ফুরোবে কিন্তু প্রশংসার প্রতিলিপি ফুরাবে না!!!!! আবারো বলছি সত্যি মনোমুগ্ধকর ছবি। বাহ্ কি অবাক চাহনি।

    ReplyDelete
  3. সবাই ধীরে সুস্থে photo post করুন। ধাক্কা ধাক্কি করবেন না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে photo post করুন।আর কেউ উত্তেজিত হয়ে comment করতে গিয়ে বানান ভুল করবেন না। আমারা কমেন্ট করতে আসি না, শুধুমাত্র পড়তে আসি। তাই এমন ভাবে comment করুন, যাতে আমাদের পড়তে অসুবিধা না হয়।😁

    ReplyDelete
  4. পড়তে বসতে যাচ্ছিলাম, শুনলাম আপনি পোষ্ট দিয়েছেন। কিসের পড়াশোনা, কিসের পরীক্ষা ?ব‌ই বন্ধ করে দিলাম কমেন্ট করবো বলে, চাইনা আমি এই সব পড়াশোনা!
    শুধু চাই আপনি প্রতিদিন এমন পোষ্ট করবেন, আর আমি লাইক-কমেন্ট করব।
    এ ছবি দেখতে পাওয়া আমাদের সৌভাগ্য। অসম্ভব ভাল ছবি। এক কথায় অনবদ্য। বহুদিন পরে একটা ভাল ছবি দেখলাম। একবিংশ শতাব্দীতে এধরনের ছবি আর আগে আসে নি। অনবদ্য এবং অসাধারণ। এই ছবিটি জুম করলে দেখা যাবে রন্ধ্রে রন্ধ্রে কিভাবে প্রতিভা লুকিয়ে আছে। শুধু যে প্রাসঙ্গিক ও সময় উপযোগী ছবি তা'ই নয়, একেবারে অপরূপ সৌন্দর্যের মূলে কুঠারাঘাত করেছে আমার ধারণা,বিশ্বের বিখ্যাত সব সমালোচকদের এক সাথে করলেও এই ছবির কোন ভুল ধরতে পারবে না।অসাধারণ মুখ-ভঙ্গি আর যথাযথ পোজ ছবিটিকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে।এমন পোজ জাতি আগে দেখে নি।
    ফেসবুকবাসী এমন ছবি আরো দেখতে চায়। রিয়েলদের এমন অসাধারণ ছবি জাতি বারবার দেখতে চায়।আপনার এই ছবি সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক,সাংস্কৃতিক যেকোনো প্রেক্ষাপট নিমিষে পাল্টে দিতে পারে;আপনার এই ছবি হতে পারে ভারতের নতুন আরেকটি অস্কার বিজয়ী ছবির অনুপ্রেরণা।
    খুব বেশি কিছু বলবো না কারণ আবেগে চোখে জল চলে আসছে।
    আগেই বলেছিলাম, এমন মিষ্টতা, প্রাণোচ্ছল, আহা ওয়ালা মুখ সত্যি জাতি অনেককাল দেখেনি।শতাব্দীর সেরা ছবি গুলির মধ্যে এটা একটা ।এমন ছবি দেওয়ায় জন্য অনেক ধন্যবাদ।🤣🤣🤣

    ReplyDelete
  5. প্রথমে ভুলে লাভ রিয়্যাক্ট পড়ে গেছিলো, পরে হাহা রিয়্যাক্ট দিতে গিয়ে দেখি এমবি শেষ, মাথা পুরাই নষ্ট........ যে করেই হোক পোষ্টে হাহা দিতেই হবে।
    ফ্লেক্সিলোড এর দোকানে গিয়ে দেখি দোকান বন্ধ, শেষমেষ দোকানের সার্টার ভেঙ্গে রিচার্জ করে পোষ্টে হাহা দিলাম।
    ততক্ষনে পুলিশ বিষয়টা জেনে গেছে.......এখন দোকানের খুটির সাথে বাধা আছি, বেদম পিটানি খাচ্ছি..........তারপরও মনের মধ্যে শান্তি শান্তি লাগতাছে, পোষ্টে আমি হাহা দিতে পেরেছি🙂

    ReplyDelete
  6. পড়তে বসতে যাচ্ছিলাম, শুনলাম আপনি পোষ্ট দিয়েছেন। কিসের পড়াশোনা, কিসের পরীক্ষা ?ব‌ই বন্ধ করে দিলাম কমেন্ট করবো বলে, চাইনা আমি এই সব পড়াশোনা!
    শুধু চাই আপনি প্রতিদিন এমন পোষ্ট করবেন, আর আমি লাইক-কমেন্ট করব।
    এ ছবি দেখতে পাওয়া আমাদের সৌভাগ্য। অসম্ভব ভাল ছবি। এক কথায় অনবদ্য। বহুদিন পরে একটা ভাল ছবি দেখলাম। একবিংশ শতাব্দীতে এধরনের ছবি আর আগে আসে নি। অনবদ্য এবং অসাধারণ। এই ছবিটি জুম করলে দেখা যাবে রন্ধ্রে রন্ধ্রে কিভাবে প্রতিভা লুকিয়ে আছে। শুধু যে প্রাসঙ্গিক ও সময় উপযোগী ছবি তা'ই নয়, একেবারে অপরূপ সৌন্দর্যের মূলে কুঠারাঘাত করেছে আমার ধারণা,বিশ্বের বিখ্যাত সব সমালোচকদের এক সাথে করলেও এই ছবির কোন ভুল ধরতে পারবে না।অসাধারণ মুখ-ভঙ্গি আর যথাযথ পোজ ছবিটিকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে।এমন পোজ জাতি আগে দেখে নি।
    ফেসবুকবাসী এমন ছবি আরো দেখতে চায়। রিয়েলদের এমন অসাধারণ ছবি জাতি বারবার দেখতে চায়।আপনার এই ছবি সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক,সাংস্কৃতিক যেকোনো প্রেক্ষাপট নিমিষে পাল্টে দিতে পারে;আপনার এই ছবি হতে পারে ভারতের নতুন আরেকটি অস্কার বিজয়ী ছবির অনুপ্রেরণা।
    খুব বেশি কিছু বলবো না কারণ আবেগে চোখে জল চলে আসছে।
    আগেই বলেছিলাম, এমন মিষ্টতা, প্রাণোচ্ছল, আহা ওয়ালা মুখ সত্যি জাতি অনেককাল দেখেনি।শতাব্দীর সেরা ছবি গুলির মধ্যে এটা একটা ।এমন ছবি দেওয়ায় জন্য অনেক ধন্যবাদ।🤣

    ReplyDelete
  7. Replies
    1. আমাদের সাথেই থাকবেন

      Delete
Previous Post Next Post